Home / BCS Tips / Important Disputed Islands and Border Space

Important Disputed Islands and Border Space

Important Disputed Islands and Border Space

জেনে নিন বিশ্বের বিরোধপূর্ণ কিছু গুরুত্বপূর্ণ দ্বীপ ও সীমান্ত স্থান সম্পর্কে
——-আন্তর্জাতিক —-
বিশ্বে বিরোধপূর্ণ কিছু সীমান্ত স্থান:
সিয়াচেন হিমবাহ — ভারত ও পাকিস্তান
গোলান মালভূমি — সিরিয়া ও ইসরাইল
শাত-ইল-আরব — ইরাক ও ইরান
জেরুজালেম — ফিলিস্তিন ও ইসরাইল
মংড়ু — বাংলাদেশ ও মিয়ানমার
ইমফাল — ভারত ও মায়ানমার
লাদাখ — জম্মু কাশ্মীর ও চীন
নাগার্নো কারাবাখ — আজারবাইজান ও আর্মেনিয়া
পানমুনজম — উত্তর কোরিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়া
#বিশ্বে বিরোধপূর্ণ কিছু দ্বীপ:
=====================
নিউমুর / পূর্বাশা অন্তরীপ — বাংলাদেশ ও ভারত
হানিস দীপপুঞ্জ — ইয়েমেন ও ইরিত্রিয়া
স্প্রাটলি দ্বীপপুঞ্জ — ভিয়েতনাম ও চীন
প্যারোলাস দ্বীপ — চীন ও তাইওয়ান
শাখালিন দ্বীপপুঞ্জ — জাপান ও রাশিয়া
ফকল্যান্ড দ্বীপ — ব্রিটেন ও আর্জেন্টিনা
কুরিল দ্বীপপুঞ্জ — রাশিয়া ও জাপান
পেরেজিল/লায়লা দ্বীপ —স্পেন ও মরক্কো
আবু মুসা দ্বীপ — সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইরান ।

===============
■ দ্বিকক্ষ বিশিষ্ট পার্লামেন্ট
===============

(পার্লামেন্ট-উচ্চকক্ষ-নিম্ন কক্ষ)
/
● যুক্তরাষ্ট্র: (কংগ্রেস)
1) উচ্চকক্ষ-সিনেট (সদস্যসংখ্যা ১০০)
2) নিম্ন কক্ষ-হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভস (সদস্য সংখ্যা ৪৩৫)
/
● ভারত: (পার্লামেন্ট/ সংসদ)
1) উচ্চকক্ষ-কাউন্সিল অফ স্টেটস/ রাজ্যসভা-সর্বমোট সদস্য ২৫০ (২৩৮ জন নির্বাচিত+১২ জন মনোনিত)
2) নিম্ন কক্ষ-হাউজ অফ দা পিপল/লোক সভা-সর্বমোট সদস্য ৫৪৫ (৫৪৩ জন নির্বাচিত+২ জন মনোনিত)
/
● রাশিয়া: (পার্লামেন্ট)
1) উচ্চকক্ষ-ফেডারেশন কাউন্সিল (১৬৮ জন সদস্য)
2) নিম্ন কক্ষ-স্টেট ডুমা (৪৫০ জন সদস্য)
/
● যুক্তরাজ্য/ ইংল্যান্ড/ বৃটেন: (পার্লামেন্ট)
1) উচ্চকক্ষ-হাউস অফ লর্ডস (৭৩৬ জন)
2) নিম্ন কক্ষ-হাউস অফ কমন্স (৬৫০জন)

 

আলোচিত বিপ্লব
============
১. বিপ্লবের নাম : রুশ/অক্টোবর/বলশেভিক বিপ্লব। দেশ: রাশিয়া। সময়কাল: ১৯১৭ ।
২.বিপ্লবের নাম : ফরাসি বিপ্লব । দেশ: ফ্রান্স। সময়কাল: ১৭৮৯-১৭৯৯।
৩. বিপ্লবের নাম :শিল্প বিপ্লব। দেশ: ইংল্যান্ড। সময়কাল: ১৭৮০-১৮৫০ ।
৪. বিপ্লবের নাম : আমেরিকান বিপ্লব। দেশ: যুক্তরাষ্ট্র । সময়কাল: ১৭৭৬ ।
৫. বিপ্লবের নাম : ইসলামিক বিপ্লব । দেশ: ইরান। সময়কাল: ১৯৭৯।
৬. বিপ্লবের নাম : টিউলিপ বিপ্লব । দেশ: কিরগিস্তান। সময়কাল: ২০০৫ ।
৭. বিপ্লবের নাম : কিউবান বিপ্লব। দেশ: কিউবা। সময়কাল: ১৯৫৯ ।
৮. বিপ্লবের নাম : আগস্ট বিপ্লব। দেশ: ভিয়েতনাম । সময়কাল: ১৯৪৫ ।
৯. বিপ্লবের নাম : হাঙ্গেরিয়ান বিপ্লব । দেশ: হাঙ্গেরি । সময়কাল: ১৯১৯ ।
১০. বিপ্লবের নাম : চীন বিপ্লব । দেশ: চীন। সময়কাল: ১৯৪৯ ।
১১. বিপ্লবের নাম :অরেঞ্জ বিপ্লব । দেশ: ইউক্রেন । সময়কাল: ২০০৪ ।
১২. বিপ্লবের নাম : রোজ বিপ্লব । দেশ: জর্জিয়া । সময়কাল: ২০০৩।
১৩. বিপ্লবের নাম : প্রথম ইন্তিফাদা (অভ্যুত্থান) । দেশ: ফিলিস্তিন। সময়কাল: ১৯৮৭-১৯৯১ ।
১৪. বিপ্লবের নাম : দ্বিতীয় ইন্তিফাদা (অভ্যুত্থান)। দেশ: ফিলিস্তিন। সময়কাল: ২০০০-বর্তমান ।
১৫. বিপ্লবের নাম : বলিভিয়ান বিপ্লব। দেশ: ভেনিজুয়েলা । সময়কাল: ১৯৯৮।
১৬. বিপ্লবের নাম : ভেলভেট বিপ্লব। দেশ: চেকোস্লোভাকিয়া। সময়কাল: ১৯৮৯ ।

১৭. বিপ্লবের নাম : জার্মান বিপ্লব । দেশ: জার্মানি । সময়কাল: ১৯১৮-১৯১৯।

 

 

===========================
পৃথিবীর উচ্চতম, দীর্ঘতম, বৃহত্তমঃ
===========================
উচ্চতম পর্বতশৃঙ্গ: এভারেস্ট২৯,০২৮ ফুট বা ৮,৮৪৮ মিটার।
উচ্চতম পর্বতশ্রেণী: হিমালয়।
বৃহত্তম মরুভূমি: সাহারা ৩৫ লক্ষ বর্গমাইল (আফ্রিকা)।
বৃহত্তম জলপ্রপাত: গুয়েইরা (ব্রাজিলে) ১৩।৩০০ কিউবিক মিটার।
/
বৃহত্তম উপসাগর: মেক্সিকো ঊপসাগর।
বৃহত্তম মহাসাগর: প্রশান্ত মহাসাগর ৬ কোটি ৩৮ লক্ষ বর্গমাইল।
বৃহত্তম মহাদেশ: এশিয়া ১৯৯ লক্ষ বর্গমাইল।
বৃহত্তম দেশ: রাশিয়া (আয়তন),চীন (লোকসংখ্যায়)।

দীর্ঘতম নদী: নীলনদ (আফ্রিকা) ৬,৬৯০ কিমি।
বৃহত্তম প্রাসাদ: ভ্যাটিকান ১৩ একর জমির উপর স্থাপিত (রোম)।
বৃহত্তম দ্বীপ:
গ্রীনল্যান্ড (নূতন নাম – কালালিত নুন্যত) , উত্তর আটলান্টিক মহাসাগর ২১,৭৫,৫৯৭ বর্গকিমি।
নিউগিনি ; দক্ষিন-পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগর ৮,২০,০৩৩ বর্গকিমি।
মালাগাসি; ভারত মহাসাগর ৫,৮৭,০৪২ বর্গকিমি।
বৃহত্তম সাগর: দক্ষিন চীনসাগর ২,৯৭৪,৬০০ বর্গকিমি।
/
ক্যারিবিয়ান সাগর ২৭,৫৩,০০০ বর্গকিমি।
বৃহত্তম গীর্জা: সেন্ট পিটার্স আয়তন ১৮,১০০ বর্গগজ(রোম)।
বৃহত্তম ব-দ্বীপ: বাংলাদেশ ( আর বাংলাদেশের সুন্দরবন ১০,০০০ বর্গমাইল।)
বৃহত্তম হ্রদ: আয়তনে – কাস্পিয়ান হ্রদ।
গভীরতায় – বৈকাল হ্রদ।
বৃহত্তম রেলপথ: ট্রান্স-সাইবেরিয়ান ৭,০০০ মাইল (রাশিয়া)।
বৃহত্তম রেলওয়ে প্ল্যাটফর্ম: খড়গপুর ২,৭৩৩ ফুট দীর্ঘ (ভারত)।
বৃহত্তম প্রাচীর: চীনের ১,৫০০ মাইল।
দীর্ঘতম সুড়ঙ্গ: লন্ডনের রেলসুড়ঙ্গ ১৭ মাইল দৈর্ঘ্য।
/
বৃহত্তম মিউজিয়াম: ব্রিটিশ মিউজিয়াম।
বৃহত্তম শহর: লন্ডন ৭০০ বর্গমাইল।
উচ্চতম হ্রদ: টিটিকাকা ১২,৫০৬ ফুট।
বৃহত্তম রেলস্টেশন: গ্র্যান্ড ফেটাল টার্মিনাস ৪৭টি প্ল্যাটফর্ম (নিউইয়র্ক)।

দীর্ঘতম প্রণালী (লম্বায়): মালাক্কা ৪৮৫ মাইল (মালইয়েশিয়া ও সুমাত্রার মধ্যবর্তী)।
/
দীর্ঘতম প্রণালী (চওড়ায়): মোজাম্বিক ২৪৫ মাইল (মোজাম্বিক ও মাদাগাস্কার-এর মধ্যবর্তী)।

বৃহত্তম দ্বীপপুঞ্জ: ইন্দোনেশিয়া ৩,০০০ দ্বীপ।
বৃহত্তম জাহাজ: কুইন এলিজাবেথ ৮৪,৬৭৩ টন।
বৃহত্তম ঘণ্টা: মস্কোর ঘন্টা ওজন ১৯৩ টন ও ব্যাস ২২ ফুট।
/

বৃহত্তম পার্ক: উড বাফালো ন্যাশানাল পার্ক ১৭,৫৬০ বর্গমাইল (কানাডা)।
উচ্চতম শহর: অয়েনশুয়ান সমুদ্রপৃষ্ট থেকে ১৬,৭৩২ ফুট উচু (তিব্বত)।

বৃহত্তম গম্বুজ: পিট্সবার্গ ব্যাস ৪১৫ ফুট (আমেরিকা)।
বৃহত্তম জলের ট্যাঙ্ক: টালা ট্যাঙ্ক (কোলকাতা)।
বৃহত্তম তোরণ: আইফেল টাওয়ার ৯৮৫ ফুট (প্যারিস)।
বৃহত্তম মূর্তি: স্ট্যাচু অব লিবার্টি ১৫১ ফুট (আমেরিকা)।
/
বৃহত্তম হীরক: কুল্লিয়ান ১থউন্ড।
বৃহত্তম হীরকখনি: কিম্বারলি (দক্ষিণ আফ্রিকা)।
বৃহত্তম সিনেমাগৃহ: রক্সি আসন সংখ্যা ৬,০০০ (নিউইয়র্ক)।
বৃহত্তম পরিস্রুত জলের হ্রদ: সুপিরিয়র হ্রদ ৩১,৮০০ বর্গমাইল (আমেরিকা)।
বৃহত্তম গ্রন্থাগার: ইউ.এস.লাইব্রেরী অব কংগ্রেস।
বৃহত্তম বৃক্ষ (উচ্চতায়): হাওয়ার্ডলিবি ৩৫৮ ফুট (ক্যালিফোর্নিয়া)।
/
বৃহত্তম বৃক্ষ (আয়তনে): ক্যালিফোর্নিয়া রেড উড, গুড়ির ব্যাস ১০১ ফুট ৭ ইঞ্চি (ক্যালিফোর্নিয়া)।
বৃহত্তম চিড়িয়াখানা: এতোশা রিজার্ভ ৩,৮৫,০০০ বর্গমাইল (দক্ষিন-পশ্চিম আফ্রিকা)।
ক্ষুদ্রতম দেশ: ভ্যাটিকান সিটি ০,৪৪ বর্গকিমি (ইউরোপ) ১,৭৫০ জন (জনসংখ্যা)।
বৃহত্তম জনসংখ্যার শহর: টোকিও এখন।

বিশ্বের উচ্চতম=
…………………
1. উচ্চতম হ্রদ– টিটিকাকা (বলিভিয়া)
2. উচ্চতম রাজধানী– লাপাজ (বলিভিয়া)
3. উচ্চতম পর্বত শৃঙ্গ– এভারেষ্ট (নেপাল)
4. উচ্চতম মিনার- দিল্লির কুতুব মিনার
5. উচ্চতম মালভুমি– পামির
6. উচ্চতম আগ্নেয়গিরি– গুয়ালটিবি
7. উচ্চতম জলপ্রপাত– অ্যাঞ্জেল(ভেনিজুয়েলা)
8. উচ্চতম প্রাণি– জিরাফ
9. উচ্চতম বাঁধ– রৈগোন
10. উচ্চতম স্ট্যাচু– স্ট্যাচু অবলিবার্টি (নিউইয়র্ক)
=====================
ভৌগলিক উপনাম

সূর্যোদয়ের দেশ – জাপান

ভূ-স্বর্গ – কাশ্মীর

নিষিদ্ধ দেশ –তিব্বত

নিষিদ্ধ নগরী –লাসা

মুক্তার দ্বীপ – বাহরাইন

সমুদ্রের বধু – গ্রেট বিটেন

নিশীথ সূর্য্যের দেশ – নরওয়ে

সাদা হাতির দেশ – থাইল্যান্ড

বাজারের শহর – কায়রো

নীল নদের দেশ – মিশর

আগুনের দ্বীপ – আইসল্যান্ড

প্রাচ্যের ডান্ডি – নারায়ণগঞ্জ

বজ্রপাতের দেশ – ভূটান

সোনালী তোরণের শহর – সানফ্রান্সিসকো

ইউরোপের ককপিট – বেলজিয়াম

স্কাই স্ক্রাপার্সের শহর – নিউইয়র্ক

ব্রিটেনের বাগান – কেন্ট (ইংল্যান্ড)

মসজিদের শহর – ঢাকা

সাদা শহর – বেলগ্রেড (যুগোস্লাভিয়া)

মুক্তার দেশ – কিউবা

বাতাসের শহর – শিকাগো

হাজার দ্বীপের দেশ – ফিনল্যান্ড

মন্দিরের শহর – বেনারস

মরুভুমির দেশ – আফ্রিকা

নীরব শহর – রোম

পবিত্র ভুমি – প্যালেস্টাইন

ভূমিকম্পের দেশ – জাপান

সাত পাহাড়ের শহর – রোম

দক্ষিণের গ্রেট ব্রিটেন – নিউজিল্যান্ড

প্রাচ্যের গ্রেট ব্রিটেন – জাপান

শ্বেতাঙ্গদের কবরস্থান – গিনিকোস্ট

পান্না দ্বীপ – আয়ারল্যান্ড

চির সবুজের দেশ – নাটাল

পোপের শহর – রোম

উত্তরের ভেনিস – স্টকহোম

স্বর্ণ নগরী – জোহনেসবার্গ

ল্যান্ড অব মার্বেল – ইটালি

পবিত্র পাহাড় – ফুজিয়ামা (জাপান)

গোলাপি শহর – রাজস্থান (ভারত)

দ্বীপের নগরী – ভেনিস

আফ্রিকার সিংহ – ইথিওপিয়া

সকাল বেলার শান্তি – কোরিয়া

ইউরোপের রণক্ষেত্র – বেলজিয়াম

 

 

চির বসন্তের নগরী – কিটো (দ. আমেরিকা)

চীনের দুঃখ – হোয়াংহো নদী

ভূ-মধ্য সাগরের প্রবেশদ্বার – জিব্রাল্টার

ম্যাপল পাতার দেশ – কানাডা

দক্ষিণের রাণী – সিডনি

প্রাচ্যের ভেনিস – ব্যাংকক

=====================
* জাতিসংঘের তথ্য অনুসারে ঢাকা বিশ্বের কততম মেগাসিটি?
উত্তর: ১১ তম
নিম্নের কোন সংস্থাটি ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবে স্বীকৃতি দিয়েছে? উঃ UNESCO
====

 

জাতিসংঘের ইতিহাস
============
(1,)
লন্ডন ঘোষন – 1941 সালের 12 জুন, জেমস প্রাসাদ লন্ডন,- জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠার প্রাথমিক পযায়
(2)
আটলান্টিক সনদ,- 14 আগস্ট 1941,ব্রিটিশ রন তরি,জাতিসংঘের মেরুদন্ড রুপে আটলান্টক সনদ প্রচার
(3)
ওয়াশিংটন সম্মেলন,: 1জানুয়ারি1942 ওয়াশিংটন,জাতিসংঘ ঘোষনা
(4)
মস্কো ঘোষনা, 1943,,মস্কো রাশিয়া,নিরাপওা সংক্রান্ত চার জাতি ঘোষনা গ্রহন
(5)
তেহেরান সম্মেলন 1 ডিসেম্বর 1943 তেহেরান,সকল দেশকে সদস্য গবার আহবান
(6)
ডাম্বারটোন ওকস সম্মেলন,1944,যুক্তরাষ্ট,সনদের খসড়া প্রতিষ্ঠা
(7)
ইয়াল্টা সম্মেলন,ফেব্রুয়্ারি 1945,,ক্রিমিয়া, স্হায়ি সদস্য গ্রহন ও ভেটো প্রদান
(8)
সানফ্রানসিসকো সম্মেলন, জুন 1945 যুক্তরাষ্ট, 50 দেশ জাতিসংঘ সনদে স্বাখখর প্রদান

[X]
Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *