Home / Govt Jobs / Finance minister is considering proposal of shutting down govt bank except Sonali Bank

Finance minister is considering proposal of shutting down govt bank except Sonali Bank

 

রাষ্ট্রমালিকানাধীন একটি ব্যাংক রেখে বাকিগুলো বন্ধের চিন্তা করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (এমসিসিআই) ও মাছরাঙা টেলিভিশনের যৌথ আয়োজনে ‘বাজেট ২০১৬-১৭, আমাদের প্রত্যাশা’ শীর্ষক আলোচনায় গত শুক্রবার অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেছেন।

মেট্রো চেম্বারের কার্যালয়ে সংগঠনটির নির্বাহী কমিটির সদস্য নিহাদ কবিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনায় সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের তিন উপদেষ্টা, গবেষক ও ব্যবসায়ী নেতারা অংশ নেন।

পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) ভাইস চেয়ারম্যান সাদিক আহমেদ অনুষ্ঠানে বলেন, রাষ্ট্রের হাতে সোনালী ব্যাংক বা একটি ব্যাংক রেখে অন্য ব্যাংকগুলো বন্ধ করা উচিত। অথবা বলে দেওয়া যেতে পারে, তারা আমানত সংগ্রহ করবে কিন্তু ঋণ দিতে পারবে না। সরকারি প্রতিষ্ঠানে ভর্তুকি বন্ধেরও পরামর্শ দেন তিনি।

জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘একটি ব্যাংক রেখে অন্যগুলো বন্ধের প্রস্তাবটি ভালো। এটা নিয়ে চিন্তা করা হবে।’

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক গভর্নর মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন বলেন, বেসরকারি ব্যাংকেও ভয়াবহ দুর্নীতি হচ্ছে, কিন্তু জানা যাচ্ছে না। তা ছাড়া বেসরকারি ব্যাংকের আমানতের সঙ্গে ঋণের সুদ হারের ব্যবধান ৬–৭ শতাংশ। আর রাষ্ট্রমালিকানাধীন ব্যাংকে ২ শতাংশ। এ কারণেও তারা লোকসান দিচ্ছে।

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা এ বি মির্জ্জা মো. আজিজুল ইসলাম বলেন, ‘দেশে বড় বাজেট দরকার। কিন্তু সরকারের রাজস্ব সংগ্রহের হার নেপালের চেয়েও কম।’ এই হার বৃদ্ধির তাগিদ দিয়ে তিনি স্বাস্থ্য ও শিক্ষা খাতে সরকারকে নিয়ন্ত্রকের ভূমিকা পালনের পরামর্শ দেন।

অর্থনীতিবিদ ওয়াহিদউদ্দিন মাহমুদও বাজেটে স্বাস্থ্য ও শিক্ষা খাতে বরাদ্দ কমার তথ্য তুলে ধরে ভবিষ্যতে তা বাড়ানোর পরামর্শ দেন। তিনি আরও বলেন, ‘বিনিয়োগ চাঙা হওয়ার লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। এ বিষয়ে নজর দেওয়া উচিত।’

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আরেক উপদেষ্টা সৈয়দ মঞ্জুর এলাহী বলেন, ‘বেসরকারি খাতে ব্যবসার পরিচালন ব্যয় বেড়েছে। তাই বন্দরের খরচ ও ঋণের সুদ হার কমাতে হবে।’

দেশের শিক্ষার মান আন্তর্জাতিক নিরিখে যাচাইয়ের ব্যবস্থা করা উচিত বলে মনে করেন বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা সংস্থার (বিআইডিএস) গবেষণা পরিচালক বিনায়ক সেন।

এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ বেশির ভাগ কথা বলেন নতুন মূল্য সংযোজন কর (মূসক) আইনের বাস্তবায়ন নিয়ে। তিনি বলেন, ‘নতুন আইনের সংশোধন করতে হবে। এটি বাস্তবায়ন করতে হবে যৌথ কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী।’

এমসিসিআইয়ের সভাপতি সৈয়দ নাসিম মঞ্জুর দেশে ৯০ হাজার দক্ষ বিদেশি কাজ করছেন এবং এতে ৪৫০ কোটি ডলার বিদেশে যাচ্ছে বলে তথ্য দেন। এই দক্ষ জনশক্তি দেশেই তৈরির প্রস্তাব দেন তিনি।

এমপ্লয়ার্স ফেডারেশনের সভাপতি সালাউদ্দিন কাশেম খানও দক্ষ জনশক্তি তৈরিতে জোর দিতে বলেন। তিনি অবশ্য এ জন্য আন্তর্জাতিক মানসম্মত শিক্ষাব্যবস্থা চালুর পরামর্শ দেন।

সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) নির্বাহী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘প্রাতিষ্ঠানিক দুর্বলতায় আমরা বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়নে পিছিয়ে। এতে জনগণ বঞ্চিত হচ্ছে।’

[X]
Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *