Home / News / প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে অশ্লীল কটূক্তি করার অভিযোগে যশোরের আদালতে মামলা দায়েরের পর নড়াইলের কালিয়াসহ বিভিন্ন এলাকায় প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের চেয়ারম্যান মিহির কুমার মজুমদার কর্তৃক ওই কটূক্তির প্রতিবাদ ও শাস্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার কালিয়া প্রেস ক্লাবে এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নড়াইলের কালিয়া উপজেলার কলাবাড়িয়া গ্রামের নজরুল ইসলামের পুত্র ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক হেলাল আহমেদের গত বুধবার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট যশোর সদর আদালতে দায়েরকৃত এমপি-২০৭/১৬ মামলার বিবরণে জানা যায়,পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের বরিশাল জেলার হিজলা শাখার হিসাব সহকারী জসীম সরকার তার ফেসবুক আইডিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. প্রশান্ত কুমার রায়ের ছবি সম্বলিত একটি প্ল্যাকার্ডে “নন্দিত জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক, ড. প্রশান্ত কুমার রায়ের অবদান” ছাড়ার কারণে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের চেয়ারম্যান মিহির কুমার রায় জসীম সরকারকে মোবাইল ফোনে অকথ্য ভাষায় গালাগাল দিয়ে বলেছেন “পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের অবদান কোনো কুত্তার বাচ্চাদের নয়। এটা শুধু আমার অবদান”।

ওই মামলা দায়েরের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে অশ্লীল কটূক্তির বিষয়টি জানাজানি হলে নড়াইলের কালিয়ার রাজনৈতিক অঙ্গনসহ বিভিন্ন মহলে কটূক্তির প্রতিবাদে ও কচূক্তিকারীর শাস্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার দুপুর ৩টায় কালিয়া প্রেস ক্লাবে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কালিয়া প্রেস ক্লাবের সভাপতি মশিউল হক মিটুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মোল্যা ইমদাদুল হক, নড়াগাতি থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম খাজা নাজিমুদ্দিন, নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. ওয়াহিদুজ্জামান হীরা, সাংবাদিক মাসুম রেজা, গোলাম মোর্শেদ, কামরুজ্জামান কামাল ও নড়াগাতি থানা যুবলীগের সভাপতি সোহরাব হোসেন প্রমুখ। বক্তারা প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে কুরুচিপূর্ণ কটূক্তিকারী মিহির কুমার মজুমদারের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন।

[X]
Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *