Home / prothom alo / prothom alo editorial

prothom alo editorial

BCS রিটেনে অনুবাদে ৬৫ নম্বর! বাংলাদেশ ব্যাংক এডিতে ৫০ !! পিএসসির বিভিন্ন নন ক্যাডার জব ও সরকারী ব্যাংক রিটেনে ১০ -২০ নম্বর । তাই নিয়মিত চর্চার বিকল্প নাই

.
১. একটি দেশের সমৃদ্ধির অর্জনের লক্ষে অর্থনৈতিক অগ্রগতির কোনো বিকল্প নেই।

 

.There is no alternative to achieve prosperity of a country without economic development.
২. সঙ্গত কারণেই যখন অর্থনীতিসংক্রান্ত এমন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়, যা দেশ মানুষের স্বার্থে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে_ তখন তা ইতিবাচক।
In this consideration , It will be a good sign, If the Govt. take such kind of economic based initiatives which are play a crucial role for the well being for the people.
.
৩.সম্প্রতি পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত খবরের মাধ্যমে জানা যাচ্ছে, দেশব্যাপী ১০০ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছে সরকার।
Recently, We come to know from different newspaper is that the Govt. is going to set up 100 economic zones
.
৪.এটা বলার অপেক্ষা রাখে না, সফল হওয়া যাবে এমন অর্থনৈতিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে চাওয়া হয়, তবে তার জন্য প্রয়োজন শিল্পায়ন।
There is nothing to say that, such economic development project should be taken which are come to light with successfully and for this Industrialisation is must..
.
৫ফলে পশ্চাৎপদ ও অনগ্রসর এলাকাসহ সম্ভাবনাময় সব এলাকায় অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করার যে লক্ষ্য, তার সুষ্ঠু বাস্তবায়ন অপরিহার্য।
So, The aim to set up these economic zones at the backword , rural and all other prosperous area should be implemented properly.
.
৬ফলে এটা নিশ্চিত, এই অঞ্চলগুলোর সুষ্ঠু বাস্তবায়ন হলে বিপুল জনসংখ্যার এই দেশের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি অর্থনৈতিক উন্নয়ন আরো গতিশীল হবে।
And we hope that , If the economic zones implement properly , employment and economic development will surely go faster in this massive populous country.

.
৭.একই সঙ্গে এটাও আমলে নিতে হবে, এর আগে অনেক উন্নয়নমূলক প্রকল্প যথাসময়ে বাস্তবায়িত না হওয়া, অব্যবস্থাপনার ফলে থমকে থাকাসহ নানা ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ আছে।
Simultaneously , It should be bear in mind that there is an allegation of lay out and many unexpected situation has turned up before , because many development projects have not implemented in time.
.
৮ফলে সার্বিকভাবে আমরা চাই এমন পরিস্থিতির পুনরাবৃত্তি রোধ হোক এবং সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দেশ ও মানুষের স্বার্থকে প্রাধান্য দিয়ে ইতিবাচক ধারায় এগিয়ে যাক দেশের অর্থনীতি।
So, We whole-heartedly want that the repetition of such kind of situation should be prevented and wish the economy of the country goes to upper word in considering of the well being of the people and country with all round efforts.
======================================

 

 

অন্য পত্রিকা থেকে
.
দেশের আইনে শিশুশ্রম নিষিদ্ধ।
Child labor is illegal in accordance with the present law of the country.
কিন্তু তা সত্ত্বেও কমছে না শিশুশ্রমিকের সংখ্যা।
Moreover , the number of the child labor is not decreasing
বরং তাদের সংখ্যা যেন দিনদিন বাড়ছে।
Rather than It is skyrocketing day by day
পাশাপাশি বাড়ছে শিশুশ্রমিকের আয়ের ওপর নির্ভরশীল পরিবারের সংখ্যাও।
Besides , The number of the family which depend on the income the child labor is also increasing.
শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক (চুন্নু) সম্প্রতি বলেছেন, বর্তমানে ৫ থেকে ১৭ বছর বয়সী সাড়ে ৩৪ লাখ শিশুশ্রমিক রয়েছে।
Recently, The Labor and Employment state minister Mujibul haque chunnu said, ” At present , there are 34.5 Lakhs child labor in the country which are 5-17 years old .

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *